১৬টি অজানা গুরুত্বপূর্ণ এ্যানড্রয়েড অ্যাপস

0
267

১৬টি অজানা গুরুত্বপূর্ণ এ্যানড্রয়েড অ্যাপস

১) CamScanner – এই এ্যাপসটি ছাত্র ছাত্রী এবং অফিসিয়াল কাজের জন্যে উপকারী একটি এ্যাপস। ধরুন আপনি ক্লাসে একটি প্রয়োজনীয় নোট নিবেন কিন্তুু যার থেকে নিবেন সেটা লিখতে বা কপি করার মতন সময় আপনার কাছে নেই৷ তখন এই অ্যাপটি আপনার খুব কাজে দিবে ৷ শুধুমাত্র ছবি তুলেই যেকোনো ফাইল আকারে যেমন পিডিএফ, মেসেজ আকারে যেকোনো প্লাটফর্মে শেয়ার করতে পারবেন৷ এডিট করে নিজের মতো ওয়ার্ড আবার সংযুক্ত করতে পারবেন ৷ তাছাড়া খুব সহজে যেকোনো বই এর পৃষ্টার ছবির তুলে পিডিএফ আকারে সাজিয়ে সংরক্ষণ করতে পারেন পারবেন৷

২) Privacy Screen – অনেক সময় বন্ধুদের সাথে বা পাবলিক প্লেসে গুরুত্বপূর্ণ সিক্রেট কোনো মেসেজ করছেন কিন্তু দেখলেন কেউ আপনার পাশে বসে আপনার সব মেসেজ পড়ছে ৷ আপনি এই অবস্থায় অবশ্যই নিরাপত্তাহীনতায় ভুগবেন ৷ কিন্তু প্রাইভেসি স্ক্রিন অ্যাপটির মাধ্যমে যতটুকু ইচ্ছে আপনার ফোনের স্ক্রিন ঢেকে রেখে নিশ্চিন্তে চ্যাটিং করতে পারবেন ৷ এতে করে আপনার পাশের জন দেখতেও পারবে না কিছু

৩) Faster for Facebook – এই এ্যাপসটি একাধিক ফেসবুক আইডি ব্যাবহারকারীর জন্য কার্যকারী একটি এ্যাপস। এটা হলো ফেইসবুকের ক্লোন ভার্সন৷ আপনি চাইলে একসাথে অনেকগুলো আইডি লগইন করে রাখতে পারবেন, কোনোরকম লগআউট করা ছাড়া৷ শুধু মাত্র অপশন ক্লিক করলেই একটা থেকে আরেকটা আইডিতে যেতে পারবেন৷ এর ভিতর অনেকগুলো থিম আছে, যার ফলে ফেইসবুকে নতুন মাত্রা পাওয়া যায়৷ তাছাড়া বাকি অপশন গুলো অনেক সুন্দর করে সাজানো!

৪) Live Net TV – এই অ্যাপটি টিভি অ্যাপের সকল সকল ফিচার বিদ্যমান ৷ এ্যাপটি আবিষ্কার করতে অনেক কষ্ট হয়েছে আমার ৷ অ্যাপের মধ্যে প্রায় 150+ চ্যানেল আছে, এবং সবগুলো চ্যানেল খুব সুন্দরভাবে লোডিং করে ৷ তাছাড়া ক্যাটাগরিতে সাজানো , মিউজিক, নিউজ, খেলা, কিডস, খুব সুন্দরভাবে বিভক্ত করা আছে৷ জার্মান, লন্ডন, ইউএসএ, পাকিস্থান, ইন্ডিয়া, বাংলাদেশ সহ অনেক দেশের চ্যানেল এখানে আছে৷ যা এক কথায় অসাধারণ একটা টিভি দেখার এ্যাপলিকেশন৷ প্লে স্টোরে এটা পাবেন না তাই এখানে লিংক দিলাম৷ লিংকটা কপি করে (ডট) লেখাটি কেটে লিংকে ঢুকে এটি ডাউনলোড করে নিন৷ https://play.google.com/store/apps/details?id=com.sh.media.livenettv2

৫) বইপোকা – বই পড়তে যারা ভালোবাসে তাদের জন্যে মনের মতন একটা অ্যাপ৷ প্রয়োজনে বা পছন্দের লেখকের বইয়ের পিডিএফ গুগলে খুঁজে খুঁজে যায়া ক্লান্ত সার্চ করলে এটাসেটা লিংক আসে শুধু যেটা চাচ্ছেন সেটাই পাচ্ছেন না ৷ এই এ্যাপটি ইন্সটল করে নিন প্লে স্টোর থেকে৷ এখানে বাংলাদেশসহ পুরো পৃথিবীর প্রায় নামকরা লেখক সাহিত্যিকদের বই পাবেন৷

৬) Camfind – এটি একটি খুবই খুবই এবং খুবই অসাধারণ অ্যাপ৷ অনেকেই এটার নাম রেখেছে গোয়েন্দা৷ মানুষ ব্যাতিত যে কোন বস্তুর ছবি এই অ্যাপ দিয়ে তুললেই আপনাকে বলে দিবে এটা কি, এটার নাম কি, এটা দেখতে কেমন, দাম কত ইত্যাদি ৷ আমি এ্যাপসটির মাধ্যমে আমার পুরান এডিডাস জুতার ছবি তুলেছিল, অ্যাপটি সুন্দর করে বলে দিলো এটা এডিডাস জুতা, এটার রঙ হলুদ, এটা কোথায় উৎপাদন হয় এবং পাওয়া যায় সকল বিস্তারিত ৷

৭) Dumpster -প্রায় সময় আমরা ভুলে করে ফোন থেকে প্রয়োজনীয় গান, ছবি, অ্যাপ, লেখা ডিলেট করে ফেলি বা ডিলিট হয়ে যায় ৷ তখন রাগের মাথায় নিজের চুল টানতে ইচ্ছে হয় ৷ তবে এই অ্যাপটি আপনি আপনার ফোনে ইনস্টল করা থাকলে আপনার ফোনের যা ডিলেট হবে সেটা এই অ্যাপের ভেতর জমা হয়ে থাকবে৷

১৬টি অজানা গুরুত্বপূর্ণ এ্যানড্রয়েড অ্যাপস

৮) Diskdigger – উপরের Dumpster অ্যাপের সাথে এই অ্যাপের অনেকটাই মিল আছে কিন্তু সেটা থেকে এইটার চমক একটু ব্যাতিক্রম ৷ উল্লেখিত অ্যাপটি ইনস্টল করার পর শুধু আপনার হারানো জিনিস জমা হবে এবং পাবেন৷ কিন্তু এই অ্যাপসটি ইনস্টল করার পর আপনার ফোনে এখন পর্যন্ত যত ছবি বা স্ক্রিনশট ডিলিট হয়েছে বা হারিয়ে গেছে, এই অ্যাপের মাধ্যমে সব ফিরে পাবেন ৷ যদিও আগে অ্যাপটি ইনস্টল না করাও থাকে , এই এ্যাপস ইনস্টল করে সার্চ দিলেই আবার সব চলে আসবে৷ তবে শুধুমাত্র ছবিগুলোই ফিরিয়ে আনা সম্ভব ৷ আমার ব্যবহৃত সবচেয়ে দারুন একটি অ্যাপ এটি৷

৯) Sound Hound – আপনার আশে পাশে গান বাজতেছে, গানটা আপনার পছন্দ হয়েছে কিন্তু গানের বিস্তারিত জানেন না, অথবা বন্ধু নতুন একটা গান শুনতেছে কিন্তুু আপনাকে দিচ্ছে না কোনো সমস্যা নাই, সাউন্ড হাউন্ড চালু করলে সেই বলে দেবে গানের ডিটেইল। শুধু গানটি বাজার আশেপাশে অ্যাপটি অন করে রাখলেই চলবে ৷

১০) Parallel Space – যারা একের অধিক আইডি ইউজ করেন, তাদের জন্যে এটি বেশ উপকারে আসবে ৷ এই অ্যাপের মাধ্যমে আপনি প্রতিটা আইডি মাল্টিভাবে ব্যাবহার করতে পারবেন৷ ফেইসবুক, হোয়াটসএ্যাপ থেকে শুরু করে যাবতীয় যত সোশ্যাল আইডি আছে সব আপনি সহজেই ডাবল ডাবল ব্যাবহার করতে পারবেন৷

১১) Crook catcher – আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ এবং প্রয়োজনীয় অ্যাপ ৷ আপনার ফোন চুরি হলে বা আপনি ছাড়া অন্য কেউ আপনার ফোনে লক খোলার চেস্টা করলে তার ছবি উঠে যাবে আপনার ফোনে সাথে সে কোথায় আছে সে ম্যাপ আপনাকে দেখাবে৷ অ্যাপটির সেটিংসে আপনি ইমেইল একটিভ করে রাখলে যে লক খোলার চেষ্টা করবে তার ছবি এবং লোকেশন আপনার ইমেইল, ফোনে, মেসেজে অটোমেটিক চলে যাবে৷

১২) 30 days fitness challenge – শরীরের মেদ বেড়ে গেছে৷ নিজেকে মোটা মোটা লাগে৷ মনে হচ্ছে ইসস! যদি একটু স্লিম হতে পারতাম৷ বাসায় বসে জিম করেন তবুও ওজন কমে না বা স্লিম হচ্ছেন না৷ যার কারণ হলো আপনি ঠিকমতো নিয়মমাফিক ব্যায়াম করতে পারছেন না৷ এই অ্যাপটি ডাউনলোড করে নিন৷ এতে পাবেন ৩০ দিনের একটা কোর্স৷ ভিডিও সহ সব টিউটরিয়াল৷ প্রতিদিন কতটুক ব্যায়াম করলেন তার একটা তালিকা৷ তাছাড়া আছে কিভাবে ব্যায়াম করবেন, কতগুলো পুসআপ প্রথমে দিতে হবে, প্রতিদিন কতটুকু ব্যায়াম করতে হবে , ছেলে মেয়ে উভয়ের জন্যেই আলাদাভাবে দারুন সব টিপস পাবেন এই অ্যাপে৷

১৩) Evernote / Colornote – লেখালিখি বা কোনো ডকুমেন্ট নোট করে রাখার জন্যে এই দুটো অ্যাপ সেরা৷ আপনার যত লেখা তা সেটিংস থেকে যদি ইমেইল সেট করে রাখেন, তাহলে লেখা হারিয়ে গেলো বা ফোন ফরমেট বা সফটওয়্যার ডিলেট হয়ে গেলেও আপনার লেখা ব্যাকআপ হিসেবে থেকে যাবে৷ প্রতিবার লেখার পর (Sync) করে রাখলে অটোমেটিক ব্যাকআপ হয়ে যাবে৷ পরবর্তীতে অ্যাপটি ইনস্টল করে আইডি লগইন করলেই আগের সব লেখা চলে আসবে।

১৪) Alarmy – যারা ঘুম থেকে দেরিতে উঠেন বা সাধারণ এলার্মে আপনার মজার ঘুমের কিছুই করতে পারে না। তাদের জন্যে এটি একটি প্রয়োজনীয় অ্যাপস। যে তৈরি করছে, আমি শিউর ছোট বেলায় ঘুম থেকে উঠার জন্যে এ লোক প্রচুর মাইর খাইছে তাই রাগ করে এ অ্যাপ তৈরি করছে৷ সাধারণ অ্যালার্ম দিলেও মাঝেমাঝে ঘুমের জন্যে উঠতে পারিনা৷ আবার অ্যালার্ম বন্ধ করে শুয়ে থাকি কিন্তু এই অ্যাপ ইউজ করলে আপনার সকাল বেলার ঘুম সত্যিই হারাম করে ৷ অ্যালার্ম বাজার সাথে সাথে আপনাকে বলবে মোবাইল ৫০ বার ঝাকি দেন বা একটা অংক দেবে সেটা করতে সমাধান করতে ৷ আবার বলবে একটা ছবি তুলে দিতে ৷ আর এসব যদি না করেন আপনার অ্যালার্ম বন্ধ হবে না ৷ মোটা কথা আপনাকে ঘুম থেকে তুলেই ছাড়বে৷

১৫) Kinemaster– মোবাইলে ভিডিও এডিটিং করার সবচেয়ে পছন্দের এ্যাপের মধ্যে অন্যতম। ভিডিও এডিটিং করার বেসিক টুলস এবং ফিচার সবগুলোই পাবেন এই এ্যাপসে। কারো জন্মদিনে ছবি দিয়ে ভিডিও বানানো, বিভিন্ন থিম, vfx, স্টিকার, পছন্দের গান এড করাসহ দারুন সব ফিচার৷

১৬) Sim change – এই এ্যাপটি আপনার বেশ উপকারী আসতে পারে। এইটার কাজটা ছোট কিন্তু অনেকটা হেল্পফুল। শুধু আপনার ফোনে ইন্সটল করে একটি কনটাক্ট নম্বর যুক্ত করবেন, ব্যাস হয়ে গেলো । এখন আপনার ফোন চুরি হয়ে গেলে , চোর যখনই আপনার সিম খুলে তার সিম তুলবে সাথে সাথে চোরের নম্বর আপনার দেওয়া কনটাক্ট নম্বরে এসএমএস এর মাধ্যমে চলে আসবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here